নিজের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রত্যাহার চান মোশাররফ

গত ৭ নভেম্বর দেশের চলচ্চিত্রের সবচেয়ে বড় পুরস্কার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। এতে নুর ইমরান মিঠু পরিচালিত ‘কমলা রকেট’ সিনেমার জন্য ‘শ্রেষ্ঠ অভিনেতা কৌতুক চরিত্রে’ পুরস্কার পাচ্ছেন জনপ্রিয় অভিনেতা মোশাররফ করিম। তবে পুরস্কারটি গ্রহণে অনিচ্ছা প্রকাশ করে এটি প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন এ তারকা।

সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক লিখিত বিবৃতিতে মোশাররফ করিম এসব কথা জানান।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের জুরি বোর্ডের কাছে অনুরোধ করে মোশাররফ করিম বলেন, ‘সম্মানিত জুরি বোর্ডের কাছে আমার অনুরোধ, ‘শ্রেষ্ঠ অভিনেতা কৌতুক চরিত্রে’ আমার জন্য বরাদ্দ করা পুরস্কারটা প্রত্যাহার করে নিলে ভালো হয়। না হলে আমার পক্ষে এই পুরস্কার গ্রহণ করা সম্ভব নয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘‘সবাইকে অবগত করতে চাই, কৌতুকপূর্ণ বা কমেডি চরিত্র আমার কাছে অন্যসব চরিত্রের মতোই সমান গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু ‘কমলা রকেট’ চলচ্চিত্রে আমি যে চরিত্রটিতে অভিনয় করেছি সেটি কোনোভাবেই কমেডি বা কৌতুক চরিত্র নয়। ছবিটির চিত্রনাট্যকার, পরিচালকসহ সহশিল্পীরা নিশ্চয় অবগত আছেন। একইসঙ্গে যারা চলচ্চিত্রটি দেখেছেন তারাও নিশ্চয় উপলব্ধি করেছেন এতে আমার অভিনয় করা ‘মফিজুর’ চরিত্রটি কোনো কৌতুক চরিত্র নয়। এটি প্রধান চরিত্রগুলির একটি।’’

বর্তমানে ব্যক্তিগত কাজে মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন মোশাররফ করিম। দেশে না থাকায় লিখিত আকারে এই বিষয়টি তিনি জানিয়েছেন বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করেছেন। এছাড়া পরিস্থিতিটি বুঝতে পেরে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও অনুরোধ করেছেন তিনি।

সবশেষে মোশারফ বলেন, ‘আমি কাজটাকে ভালোবেসে আমৃত্যু কাজ করে যেতে চাই। আমার ভক্ত, শুভাকাঙ্খীসহ সকলের কাছে আমার ও আমার পরিবারের জন্য দোয়া চাই। একইসঙ্গে যারা পুরস্কার পেয়েছেন সবাইকে অভিনন্দন জানাই।’

‘কমলা রকেট’ মূলত কথাসাহিত্যিক শাহাদুজ্জামানের ‘মৌলিক’ ও ‘সাইপ্রাস’ নামের দুটি গল্প অবলম্বনে নির্মিত। এর চিত্রনাট্য লিখেছেন শাহাদুজ্জামান ও পরিচালক মিঠু নিজেই। ২০১৮ সালের ১৬ জুন চলচ্চিতটি দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়।

LATEST NEWS